সর্বশেষ সংবাদ
Home / তথ্য ও প্রযুক্তি / সেবার মান ভালো না হলে কঠোর ব্যবস্থা: রবির অনুষ্ঠানে মন্ত্রী

সেবার মান ভালো না হলে কঠোর ব্যবস্থা: রবির অনুষ্ঠানে মন্ত্রী

বিশেষ প্রতিবেদক :

জনগণের জন্য মানসম্মত সেবা নিশ্চিত না করলে মোবাইল ফোন অপারেটরগুলোর বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।
বুধবার গুলশানে রবির কর্পোরেট অফিসে দেশে প্রথমবারের মতো ভয়েস ওভার লং টার্ম ইভোল্যুশনের (ভিওএলটিই) পরীক্ষামূলক ব্যবহার অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন।

তিনি বলেন, “আমরা কোয়ালিটি অব সার্ভিস গাইডলাইন দিয়েছি, জনগণের জন্য কোয়ালিটি সার্ভিস (মানসম্মত সেবা) নিশ্চিত করতে হবে। কোয়ালিটির ক্ষেত্রে কোনো ছাড় দেওয়া হবে না। কোয়ালিটি সার্ভিস না দিলে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।”

মন্ত্রী বলেন, “এটি মনে হতে পারে যে, কেউ কেউ বড় নেটওয়ার্ক তৈরি করে ফেলেছে। কিন্তু বড় নেটওয়ার্ক তৈরি করে যদি খারাপ সার্ভিস দেওয়া শুরু করে, তার চাইতে ছোট নেটওয়ার্ক তৈরি করে ভালো সার্ভিস দেওয়াটা ভালো।”

মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন,“আগামী দুই মাসের মধ্যে দেশে সব ধরনের ইলেকট্রনিক সামগ্রীর মাদারবোর্ড উৎপাদন করা হবে । আওয়ামী লীগ ঘোষণা করেছে, ২০২১ থেকে ২৩ সালের মধ্যে ফাইভ জি লঞ্চ করবে। পৃথিবীর কয়েক পার্সেন্ট দেশ সেটা চিন্তাও করেনি। এটি আমাদের বড় ধরনের সফলতার জায়গা।”

দেশের প্রতিটি বাড়িতে ইন্টারনেট সংযোগ দেওয়ার আশা প্রকাশ করে মোস্তাফা জব্বার বলেন, “কানেক্টিভিটি আমাদের এখনকার সময় ও সভ্যতার জন্য বড় ভিত্তি। আমরা বাংলাদেশের প্রত্যেকটি মানুষকে কানেক্টেড করতে চাই। টেলিকম অ্যাক্ট, পোস্টাল অ্যাক্টসহ কয়েকটি নীতিমালা সংস্কারের কথাও জানান তিনি। ”

শহরের পাশাপাশি গ্রামে ৪.৫জি নেটওয়ার্ক সেবা দেওয়ার ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন মন্ত্রী।

সবাইকে ডিজিটালি দক্ষ করে গড়ে তোলা সরকারের বড় চ্যালেঞ্জ বলে মন্তব্য করে তিনি বলেন, “আমাদের চ্যালেঞ্জ হচ্ছে শিশু থেকে বয়স্ক সবাইকে ডিজিটাল যুগের উপযোগী করা। শিশুদের প্রথম দিনের শিক্ষা থেকে শুরু করে সে যত উপরে উঠবে সে ডিজিটাল শিক্ষাটা উপভোগ করবে, সেটার মাধ্যমে সে শিক্ষিত হবে।

“আর যারা বিএ এমএ পাশ করে শিক্ষিত হয়েছে, তাদের ডিজিটাল দক্ষতা দিতে হবে।”

দেশে প্রথমবারের মতো ভয়েস ওভার লং টার্ম ইভোল্যুশন (ভিওএলটিই) প্রযুক্তির সফল পরীক্ষা সম্পন্ন করেছে ডিজিটাল সেবা প্রদানকারী কোম্পানি রবি। এর ফলে দেশের প্রথম অপারেটর হিসেবে ৪.৫জি নেটওয়ার্কে ভয়েস সেবা দেওয়ার জন্য প্রস্তুত হল তারা।

ভিওএলটিই প্রযুক্তির মাধ্যমে গ্রাহকরা ভয়েস ও ডেটা উভয় সেবাই উপভোগ করতে পারবেন। এলটিই ডেটা নেটওয়ার্কে আলাদাভাবে ভয়েস সেবাকেও কার্যকর রাখে ভিওএলটিই প্রযুক্তি।

দেশব্যাপী বিস্তৃত রবি’র ৪.৫জি নেটওয়ার্কে ভিওএলটিই সেবা কার্যকর হলে গ্রাহকরা এইচডি (হাই ডেফিনিশন) ভয়েস কল উপভোগের পাশাপাশি দ্রুততর কল সংযোগের সুবিধা পাবেন।

বাণিজ্যিকভাবে ভিওএলটিই চালু করার জন্য রবির ইকো-সিস্টেম পুরোপুরি প্রস্তুত রয়েছে উল্লেখ করে অনুষ্ঠানে জানানো হয়, সেবাটি চালু হলে কোনো ধরনের বাড়তি মূল্য পরিশোধ ছাড়াই রবি’র ৪.৫ জি গ্রাহকরা দ্রুততম সময়ে ‘সবচেয়ে ভালো মানের’ ভয়েস সেবা উপভোগ করতে পারবেন।

এ সেবার জন্য আলাদা কোনো ডেটা চার্জ প্রয়োজন হবে না এবং ভয়েস কলের ক্ষেত্রে বর্তমান ট্যারিফ প্ল্যান বা প্যাকই বহাল থাকবে।

অনুষ্ঠানে রবির ম্যানেজিং ডিরেক্টর ও সিইও মাহতাব উদ্দিন আহমেদ বলেন, “আমরা অত্যন্ত আনন্দিত এবং গর্বের সাথে বলতে পারছি যে, দেশের সবচেয়ে বড় ৪.৫জি নেটওয়ার্কে আমরা ভয়েস ওভার এলটিই ভিত্তিক ভয়েস সেবার সফল কারিগরি প্রস্তুতি শেষ করেছি। আমরা বিশ্বাস করি, এটি ডিজিটাল বাংলাদেশ রূপকল্প বাস্তবায়নে আরো একটি গুরুত্বপূর্ণ মাইলফলক।”’

অল্প সময়ের মধ্যে সারা দেশে গ্রাহকদের ভয়েস ওভার এলটিই সেবা দেওয়া সম্ভব হবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

অনুষ্ঠানে বিটিআরসির কমিশনার (ইঞ্জিনিয়ারিং ও অপারেশন্স) রেজাউল কাদের, কমিশনার (স্পেকট্রাম ম্যানেজমেন্ট) মো. আমিনুল হাসান, হেড অব কর্পোরেট অ্যান্ড রেগুলেটরি অ্যাফেয়ার্স শাহেদ আলমসহ রবির ব্যবস্থাপনা টিমের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

x

Check Also

ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহার সংক্রান্ত দু’দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মসূচির উদ্বোধন,

নির্বাচন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটে সোমবার (৩ সেপ্টেম্বর) ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহার সংক্রান্ত ...

Shares