হোয়াটসঅ্যাপ, ইনস্টাগ্রামে যোগ হচ্ছে ফেইসবুকের নাম

শীঘ্রই ইনস্টাগ্রামের নাম হবে ‘ইনস্টাগ্রাম ফ্রম ফেইসবুক’ এবং হোয়াটসঅ্যাপের নাম হবে ‘হোয়াটসঅ্যাপ ফ্রম ফেইসবুক’। অ্যাপলের অ্যাপ স্টোর এবং গুগল প্লে স্টোর উভয় প্ল্যাটফর্মেই দেখা যাবে নতুন এই নাম।

এ বিষয়ে ফেইসবুকের এক মুখপাত্র বলেন, “যে পণ্য এবং সেবাগুলো ফেইসবুকের অংশ তা নিয়ে আমরা স্পষ্ট ধারণা দিতে চাই।”

সম্প্রতি এই পরিবর্তনের ব্যাপারে অ্যাপ দু’টির কর্মীদেরকে জানানো হয়েছে। এতে অ্যাপ দু’টিতে ফেইসবুকের অধিগ্রহণের বিষয়টি আবারও খতিয়ে দেখতে শুরু করেছে অ্যান্টিট্রাস্ট নীতি নির্ধারকরা।

ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মার্কিন ফেডারেল ট্রেড কমিশন (এফটিসি) এবার খতিয়ে দেখতে শুরু করেছে ঠিক কী কারণে ইনস্টাগ্রাম এবং হোয়াটসঅ্যাপ অধিগ্রহণ করেছে ফেইসবুক। তাদের নজরে যে বিষয়টি গুরুত্বপূর্ণ তা’ হলো, কোনো সম্ভাব্য প্রতিদ্বন্দ্বী চ্যালেঞ্জ দেওয়ার আগেই তাকে প্রতিযোগিতা থেকে সরিয়ে দেওয়ার উদ্দেশ্যে ফেইসবুক এমনটা করছে কিনা।

কেমব্রিজ অ্যানালিটিকা তথ্য কেলেঙ্কারির ঘটনায় সম্প্রতি এফটিসিকে ৫০০ কোটি মার্কিন ডলার জরিমানা দিতে রাজি হয়েছে ফেইসবুক।

ইতোমধ্যেই ফেইসবুক, ইনস্টাগ্রাম এবং হোয়াটসঅ্যাপকে একত্রিত করার ঘোষণা দিয়েছেন মার্ক জাকারবার্গ।

চলতি বছরের শুরুতে ফেইসবুক প্রধান বলেন, “পরিকল্পনা বাস্তবায়নের আগে অনেক কিছু মিলিয়ে দেখার রয়েছে। এটি একটি দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা হবে, যা আমি মনে করি যে কোনো এক সময় করা হবেই, সেটা ২০২০ সাল হোক বা তারও পরে।”

তিনটি সেবার চ্যাটিং ব্যবস্থা একত্রিত করায় বাণিজ্যিক লাভের চেয়ে ডেটা এনক্রিপশন নিয়ে বেশি কথা বলেছেন জাকারবার্গ।

“প্রথম যে কারণে আমি উদ্দীপ্ত তা হলো আমাদের আরও পণ্যে এন্ড-টু-এন্ড এনক্রিপশন যোগ করা। গ্রাহক হোয়াটসঅ্যাপে এটি পছন্দ করে। আমি মনে করে ভবিষ্যতে অন্যান্য সেবাও এই পথে নেওয়া উচিত।”

“এমনও দেখা গেছে যে, গ্রাহকরা বলছেন তারা তিন প্ল্যাটফর্মের মধ্যেই বার্তা আদান প্রদান করতে চান,” যোগ করেন ফেইসবুক প্রধান।

Leave a Reply

Your email address will not be published.